কালোজিরা সম্পর্কে আমরা ৫ টি তথ্য জানবো

 

কালোজিরা সম্পর্কে আমরা ৫ টি তথ্য জানবো

কালোজীড়া এমন কিছু উপকার করবে আপনাদের যেই উপকার কোণ মেদিসিন আর খাবার করতে পারবে না এই কথা বিজ্ঞানিরা বলেছেন । বিজ্ঞানিরা ৫ টি উপকারের কথা বলেছেন

কালোজিরা সম্পর্কে আপনারা যদি এই ৫ টি তথ্য জানেন তাহলে আপনাদের দাম্পত্য জীবন সুখি থাকবে এবং সুস্থ ও থাকবে। আপনাদের কাছে একটাই অনুরুদ আপনারা সম্পূর্ন পোস্টটি পাঠ করবেন তাহলে সঠিক তথ্যগুলো জানতে পারবেন।

কালোজিরার দাম

কালোজিরার দাম আমরা অনেকেই জানতে চাই,  আমরা আজকে আপনাদের কালোজিরার তেলের পাইকারি দাম সম্পর্কে বলবো।  কালোজিরা আপনারা যত বেশি কিনবেন আপনাদের তত কম দাম পরবে তাহলে আসুন কালোজিরার দাম জেনে নেই

কালোজিরার পরিমানকালোজিরার দাম
১ কেজি কালোজিরা৩৫০ টাকা থেকে ৪০০ টাকা
২ কেজি কালোজিরা৭০০ টাকা থেকে ৭৫০ টাকা
৩ কেজি কালোজিরা১০০০ হাজার টাকা থেকে ১১০০ টাকা
৪ কেজি কালোজিরা১৩০০ টাকা থেকে ১৪০০ টাকা
৫ কেজি কালোজিরা১৬০০ টাকা থেকে ১৭০০ টাকা

আপনাদের যেই দাম বললাম সেটা হচ্ছে সারা বাংলাদেশের পাইকারি দাম৷ আমাদের দেশের  কিছু কিছু যায়গা রয়েছে সেই যায়গায় দাম কম বেশি হয়ে পারে।

কালোজিরা

কালোজিরার উপকারিতা - kalojirar upokarita

কালোজিরা দিয়ে বর্তমান ইন্ডিয়া, পাকিস্তান,  বাংলাদেশ, শ্রিলংকা,  আরো কিছু দেশ রয়েছে তারা ভিবিন্ন দরনের আয়ুর্বেদী চিকিৎসা করে। বিজ্ঞানিরা বলেছেন কালোজিরা দিয়ে আয়ুর্বেদী চিকিৎসা করে অনেক মানুষ ভিবিন্ন দরনের রোগ থেকে মুক্তি পেয়েছেন।

কালোজিরার উপকারিতা (kalojirar upokarita)  সম্পর্কে ইন্ডিয়ার এক বিজ্ঞানি বলেছেন যে কালোজিরা খাওয়ার কিছু নিয়ম রয়েছে সেই নিয়ম অনুযায়ি খেতে পারলে মানুষের শরীলের রোগ হওয়ার কথা নয়। আপনাদের কালোজিরা খাওয়ার নিয়মও বলে দিবো  আজকে।

কিডনি ভালো রাখার উপায় - আমাদের যাদের কিডনি দূর্বল হয়ে গেছে অথবা কিডনিতে ব্যাথা করে তারা এই কালোজিরা খেতে পারেন। কিডনি রোগীর খাবার হিসেবে কালোজিরার উপকারিতা অনেক। কিডনিতে পাথর হয়ে গেলেও আপনারা এই কালোজিরা খেতে পারেন। বাংলাদেশের এক ডাক্তার বলেছেন আপনারা আপনাদের কিডনিকে শক্তিশালী করে তুলতে কালোজিরা খেতে পারেন।

পাইলস এর জন্য কালোজিরা - পায়খানার রাস্তার ভিতর গোটার মতো হয়ে অনেক ব্যাথা করে যেটাকে পাইল বলা হয়। পাইলস এর ঔষধ হিসাবে কালোজিরা খেতে পারেন আপনারা। আমাদের দেশের ৯% থেকে ১০% মানুষের এই পাইলস এর সমস্যা হয়ে থাকে। তাই আমি আপনাদের বলবো আপনাদের পাইলসের সমস্যা দেখা দিলে অবশ্যই কালোজিরা খাবেন।

কালোজিরার গুরুত্বপূর্ণ কিছু উপকার সম্পর্কে আপনারা জানতে পারলেন এখন আপনারা জানতে পারবেন কালোজিরা খাওয়ার নিয়ম সম্পর্কে।

কালোজিরা খাওয়ার নিয়ম

আপনারা সকালে খালি পেটে কালোজিরা খাওয়ার আগে ১ গ্লাস পানি খাবেন,  সকালে খালি পেটে ১ গ্লাস পানি খাওয়ার পরে আপনারা ৬ থেকে ৮ গ্রাম কালোজিরা খাবেন। আপনারা কালোজিরা খাওয়ার ৪০ থেকে ৫০ মিনিটের ভিতরে কিছু খাবেন না।

আপনারা এই কালোজিরা নাক দিয়ে টেনে নিংশাস নিলেও আপনারা ভিবিন্ন দরনের উপকার পাবেন। ডাক্তারদের মতে এটাই সঠিক নিয়ম কালোজিরা খাওয়ার জন্য।

আড়ো জানুন

মধুর খেয়ে স্ত্রীকে খুশি রাখুন 

কাঠ বাদাম খেয়ে মিলনের ক্ষমতা বাড়ান

> ৫ মিনিটে কিডনি রোগের লক্ষন জানুম

 

কালোজিরার তেল

কালোজিরার তেল - kalojirar tel

কালোজিরার তেল - kalojirar tel এর ও অসাধার কিছু উপকার রয়েছে যেই উপকার গুলো আপনি কোন মেডিসিন অথবা ঔষধ থেকে পাবেন না। কালোজিরার তেল হচ্ছে আল্লাহর দান ঔষধ এই ঔষধ আপনাদের সব দরনের উপকার করবেই।

মিলনের ক্ষমতার বৃদ্ধি - কালোজিরা আপনাদের মিলনের ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করবে বহুগুন পর্যন্ত। ডাক্তার জাকারিয়া বলেছেন আপনারা যদি কোন ক্ষতি ছাড়া মিলমের ক্ষমতা বাড়াতে চান তাহলে কালোজিরা অথবা কালোজিরার তেল খেতে পারেন। এই কালোজিরার তেলের সাথে আপনারা যদি মধু মিক্স করে খেতে পারেন তাহলে আপনাদের মিলনের ক্ষমতা ৪ গুন বেশি বেড়ে যাবে।

লজ্জা ইস্থানের জন্য কালোজিরার তেল : আপনারা আপনাদের লজ্জা ইস্থানে অনেক কিছু ব্যাবহার করেছেন কিন্তু আপনারা কোন ফালাফল হয়তো পান নাই। আবার অনেকেই হয়তো চিন্তা করতেছেন লজ্জা ইস্থানে কিছু ব্যাবহার করবেন। আমি আপনাদের বলবো আপনারা প্রতিদিন রাতে ঘুমানোর আগে কালোজিরার তেল ব্যাবহার করে ঘুমিয়ে যাবেন আর সকালে ঘুম থেকে উঠে লজ্জা ইস্থানে ব্যাবহার করে নিবেন।

আপনারা যদি ৩০ থেকে ৪০ দিন পর্যন্ত ব্যাবহার করতে পারেন কালোজিরার তেল তাহলে আপনাদের লজ্জা ইস্থানে যত রকমের সমস্যা আছে সব দূর হয়ে যাবে।

মেয়েদের জন্য কালোজিরার তেলের উপকারিতা : মেয়েদের জন্য ও এই কালোজিরা অনেক উপকারি আসলে এই কালোজিরার উপকারের শেষ নেই। কালোজিরার তেল মেয়েরাও তাদের লজ্জা ইস্থানের ব্যাবহার করতে পারবে। তাহলে মেয়েদের লজ্জা ইস্থানের কালো দাগ থেকে শুরু করে যত রকমের  ইনফেকশন রয়েছে সব সমস্যা দূর হয়ে যাবে।

মেয়েরা তাদের মাসিকের সময়ও এই কালোজিরার তেল ব্যাবহার করতে পারবেন। মাসিলের সময় যদি পেট ব্যাথা করে তাহলে আপনারা কালোজিরার তেল গরম করে পেটে মালিস  করবেন তাহলে দেখবেন পেট ব্যাথা দূর হয়ে যাবে।

বাচ্চাদের জন্য কালোজিরার তেল : বাচ্চাদের জন্য ও কালোজিরার তেল অনেক বেশি উপকারি। আপনারা যদি আপনাদের বাচ্চাদের শরীলে কালোজিরার তেল ব্যাবহার করেন তাহলে দেখবেন তাদের শরীল ঠান্ডা থাকবে আর আপনার বাচ্চাও সুস্থ থাকবে।

ওজন কমানোর উপায় : কালোজিরার তেল আপনাদের ওজন কমাতেও সাহায্য করবে। ডাক্তার রায়হান বলেছেন ওজন কমানোর উপায় নিয়ে আপনারা চিন্তা করবেন না আপনারা উজন কমানোর জন্য প্রতিদিন কালোজিরার তেলে খেতে পারেন। আপনারা যদি কালোজিরার তেলে খেতে পারেন তাহলে আপনাদের শরীলের সব চর্বি শেষ করে ফেলবে এই কালোজিরার তেল।

আপনারা যদি কোন ঐষধ ছাড়া আর কোন কষ্ট ছাড়া ওজন কমাতে চান তাহলে আমি বলবো আপনারা কালোজিরার তেল খেতে পারেন। এটা আপনাদের কোন কষ্ট ছাড়াই ওজন কমিয়ে ফেলবে।

কালোজিরা আর মধুর উপকারিতা

কালোজিরা আর মধু মিক্স করে খেলে আপনাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা আরো বেশি বেড়ে যাবে। কালোজিরা আর মধু খেয়ে আপনারা ১ ঘন্টা পর্যন্ত স্ত্রীর সাথে মিলন করতে পারবেন। আমি আপনাদের বলবো আপনারা পারলে মধু আর কালোজিরা মিক্স করে খাবেন।

কালোজিরার তেল খাওয়ার নিয়ম

কালোজিরার তেল আপনারা ভিবিন্ন উপায়ে খেতে পারবেন। আপনারা সকালে খালি পেটে খেতে পারবেন এই কালোজিরার তেল আবার রান্না করেও আপনারা খেতে পারেন।

কিন্তু বেশির ভাগ মানুষ এই কালোজিরার তেল মধু মিক্স করে খায় কারন এই কালোজিরার তেল একটু তিতা।

কালোজিরার অপকারিতা

কালোজরার উপকার সম্পর্কে আপনারা সবাই জানেন কিন্তু কালোজিরার অপকারিতা সম্পর্কে আপনারা হয়তো অনেকেই জানেন না। এই কালোকিরা খাওয়া কারনে আপনাদের বমি হতে পারে।  অনেক মানুষ কালোজিরার তেল খাওয়ার সাথে সাথেই বমি করে ফেলেন।

অনেক পুরুষ কালোজিরা খাওয়ার কারনে তাদের মিলনের সময় অনেক বেশি হয়ে যায়, আর এর কারনে অনেক সময় স্ত্রী ক্লান্ত হয়ে পরে আর তাদের শরীল ও দূর্বল হয়ে যায়। তাই আপনারা অবশ্যই এই দিক গুলো খেয়াল রাখবেন।

কালোজিরা আর কালোজিরা তেলের বিস্তারিত 

কালোজিরার তেল আর কালোজিরা খাওয়ার যেই নিয়ম বলেছি আপনারা সেই নিয়মে খাবেন তাহলে আপনারা উপকারগুলো অবশ্যই পাবেন। কালোজিরা আর কালোজিরার তেল সম্পর্কে আপনাদের যেই উপকার বলেছি আপনারা তার থেকেও বেশি উপকার পাবেন।

বিজ্ঞানিরা বলেছেন এই কালোজিরা এমন একটি খাবার যেটা মৃত্যু ছাড়া সব রোগের ঔষদ। আর এই কালোজিরা সবাই খেতে পারবে  আপনারা গর্ভপ্রতি মা কে খাওয়াতে পারবেন, ৩ বছরের বাচ্চা দের ও খাওয়াতে পারবে। কিন্তু ৩ বছরের কম বাচ্চাদের খাওয়াবেন না।

এই কালোজিরা দিয়ে অনেক মেডিসিন তৈরি করা হয়ে থাকে, তাহলে আপনারা বুজতেই পারছেন কালোজিরা কতটা উপকারি খাবার।

আপনাদের আরেকটা কথা বলে দেই আপনাদের নতুন বিয়ে হলে আপনারা এই কালোজিরা খাবেন তাহলে দাম্পত্য জীবনটি অনেক সুন্দর হবে। কারন নতুন বিয়ে হলে মেয়েদের অনেক সমস্যা হয়।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য